ইলেক্ট্রোনিক্স কি ? এবং কেন?

ইলেক্ট্রোনিক্স কি?

Electronics শব্দটি ইংরেজি হলেও এর আগমন ঘটেছে গ্রীক শব্দ ‘Elektron’ হতে। এর অর্থ, “বাহ্যিক ভাবে প্রয়োগকৃত তড়িৎ ও চৌম্বক ক্ষেত্রে পরমানুর আচরণ পর্যবেক্ষণ ও পর্যালোচনা”

অক্সফোর্ড ডিকশনারির সংজ্ঞানুযায়ী-
“Electronics is the branch of physics and technology concerned with the design of circuits using transistors and microchips, and with the behavior and movement of electrons.”

ইলেক্ট্রোনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এর প্রয়োগক্ষেত্রঃ

বর্তমান সময়ে ইলেক্ট্রোনিক প্রযুক্তি ছাড়া আমরা প্রায় অচল। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে এর ব্যবহার অসীম স্থান হতে খুব বেশি দূরে নেই। মোবাইল ফোন , কম্পিউটার, টিভি, সাউন্ড সিস্টেম, যেদিকে তাকাই সেদিকেই ইলেক্ট্রোনিক প্রযুক্তির কল্যান দেখতে পাই। এর প্রয়োগ মূলত ৪ প্রকারে হতে পারে, যথাঃ যোগাযোগ এবং বিনোদনমূলক প্রয়োগ, ইন্সট্রুমেন্টেশন এবং কন্ট্রোল ভিত্তিক প্রয়োগ ক্ষেত্র, প্রতিরক্ষা কাজে প্রয়োগ,চিকিৎসা বিজ্ঞানে প্রয়োগ।

  • যোগাযোগ এবং বিনোদনমূলক প্রয়োগ ক্ষেত্র

বিংশ শতাব্দীর সূচনালগ্নে ইলেকট্রনিক প্রযুক্তি শুধুমাত্র টেলিফোনি ও টেলিগ্রাফিতে ব্যবহার হতো যা বর্তমান যুগে উন্নত হয়ে কর্ডলেস টেলিফোনি ও মোবাইল ফোনে উন্নীত হয়েছে যাতে কল ও বার্তা রেকর্ডের ব্যবস্থা রয়েছে। এই সকল আধুনিক টেলিফোনী সেট গ্রাহকের অনুপস্থিতিতে কল ও বার্তা রেকর্ড করে রাখতে পারে। ভিডিও কনফারেন্স সিস্টেম ব্যবহার করে এক দেশ হতে অন্য দেশে বৈঠক করা যায়। আধুনিক ইলেকট্রনিক যোগাযোগ ব্যবস্থার ফলে গ্রাউন্ড ষ্টেশনে বসে এয়ার ক্রাফট ও মহাকাশ যানে বার্তা ও নির্দেশনা পাঠানো যায়। বর্তমান যুগে টেলিভিশন বিনোদনের অনন্য মাধ্যম এছাড়া ডিজিটাল ভিডিও ক্যামেরা, রেকর্ড প্লেয়ার ইত্যাদি মানুষের জীবনে যোগ করেছে ডিজিটাল বিনোদন।

  • ইন্সট্রুমেন্টেশন এবং কন্ট্রোল ভিত্তিক প্রয়োগ ক্ষেত্র

আধুনিক যুগের সকল ইন্ডাস্ট্রিয়াল কাজে ইলেকট্রনিক্সের প্রয়োগ রয়েছে। ইন্ডাস্ট্রিসমূহের পণ্য উৎপাদন মেশিনসমূহকে ইলেকট্রনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে সূক্ষ ভাবে কন্ট্রোল করা হয় এছাড়া পণ্যের কোয়ালিটি কন্ট্রোলের জন্য অটোমেশন সিস্টেম উৎপাদনের মান উন্নত করে।

  • প্রতিরক্ষা কাজে প্রয়োগ

আধুনিক ইলেকট্রনিক প্রযুক্তির আবিস্কার রাডার সিস্টেমের সাহায্যে শত্রুপক্ষের ফাইটার বিমানের অবস্থান, গতিবেগ নির্ণয় করতে সাহায্য করে। আধুনিক মিশাইল, এন্টি এয়ার ক্রাফট গান ইত্যাদি ইলেকট্রনিক কন্ট্রোল সিস্টেমের মাধ্যমে এতটাই সূক্ষ ভাবে নিয়ন্ত্রন করা যায় যে শত্রুপক্ষের বিমান লক্ষে পৌছাবার পূর্বেই তাকে ধ্বংস করা যায়।

  • চিকিৎসা বিজ্ঞানে প্রয়োগ

আধুনিক চিকিৎসা বিজ্ঞানে রোগ নির্ণয়ের ক্ষেত্রে বিভিন্ন আধুনিক ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার হয়। ইসিজি, আলট্রাসনোগ্রাফী, এক্স-রে, গামা ক্যামেরা, সিটি স্ক্যানার, এমআরআই ইত্যাদি আধুনিক ইলেকট্রনিক যন্ত্রপাতির সাহায্যে দ্রুত ও কার্যকরী ভাবে জটিল রোগ নির্নয় করা যায়।

 

তথ্যসূত্রঃ

A Text Book of Applied Electronics – R. S. Sedha
Wikipedia

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *