এনড্রয়েডে চার্জিং সমস্যার সবচেয়ে কার্যকরী সমাধান

আসসালামু আলাইকুম।কেমন আছেন সবাই?
আজকের পর্বে এনড্রয়েড এর অতি সাধারণ ও বিড়ম্বনার মত একটি সমস্যা ও তার সমাধান নিয়ে কথা বলবো।সমস্যাটি হলো এনড্রয়েড স্মার্টফোন এর “চার্জ”।বর্তমান বিশ্বের বেশিরভাগ মানুষের হাতের স্মার্টফোনটি এনড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত।এরআগের “Symbian, Java” ফোনগুলোতে চার্জ নিয়ে এমন সমস্যা ছিল না।অনস্ক্রীনে ইন্টারনেটসহ বা ইন্টারনেট ছাড়া সর্বোচ্চ ৫-৮ঘন্টা ব‍্যাকআপ পাওয়া যায় বর্তমান এনড্রয়েড ফোন গুলো থেকে।এছাড়া নরমাল ব্যবহারে সর্বোচ্চ ১-৩দিন পর্যন্ত।কেন হয় এই সমস্যাটি?এর উত্তরে বলা যায় আপনার হাতের এনড্রয়েড ফোনটির এনড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম নির্দিষ্ট কিছু কোডিং এর উপর পরিচালিত।এবং ফোনেও কিছু এ্যাপ থাকে সেগুলো বিল্টইন হোক অথবা আপনার ডাউনলোডকৃত।এই এ্যাপগুলো ও কোডিং এর সাহায্যে তৈরি।সমস্যাটাও এখানেই।প্রতিনিয়ত এনড্রয়েড কোড এবং সফটওয়্যার কোডের মাঝে একটা সংঘর্ষ চলছেই।যার ফলে চার্জ ও থাকছেনা।এনড্রয়েড এর চার্জ নিয়ে এই সমস্যা কাটাতে চলছে নানারকম গবেষণা তবুও কোন ফল এখনো পাওয়া যায়নি।তবে বিশেষজ্ঞরা বেশিক্ষণ চার্জ ধরে রাখতে কিছু পরামর্শ দিয়েছেন।সেগুলোরই কিছু আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করবো

১.ফোনের সকল এ্যাপ আপ টু ডেট বা আপডেটেড রাখুন।

২.কোন এ্যাপের যদি দীর্ঘদিন আপডেট না আসে তাহলে সেটিকে আনইনস্টল করে দিন‌।যদি সেটি বেশী প্রয়োজনীয় হয় তাহলে ব‍্যাকআপ নিয়ে রাখতে পারেন প্রয়োজনের সময় ইনষ্টল করে ব‍্যবহার করতে পারবেন।

৩.এনড্রয়েড ফোনের তাপমাত্রা বাড়িয়ে দেয়া এবং ফোনের চার্জ সবচেয়ে বেশি নষ্টের জন্য যে এ্যাপটিকে দাবি করা হয় সেটি হলো আপনাদের সবচেয়ে প্রিয় “ফেসবুক এ্যাপ”।এটি আনইনস্টল করলে নিজেই ফল পাবেন।

৪.চার্জে দেয়া অবস্থায় কখনোই ফোন ব‍্যবহার করবেন না‌।এতে ব্যাটারির মারাত্মক ক্ষতি হয়।যা তাড়াতাড়ি চার্জ শেষ হবার অন‍্যতম কারণ।

৫.অপ্রয়োজনীয় বা একেবারে কম ব‍্যবহার হওয়া এ্যাপগুলো আনইনস্টল করে দিন।

৬.ব‍্যাকগ্রাউন্ডে কোন এ্যাপ আপনার পারমিশন ছাড়া রান করছে কিনা নজর রাখুন।

৭.ফোনে জিপিএস,ব্লুটুথ অপশনগুলো প্রয়োজন ছাড়া অন করে রাখবেন না।এগুলো প্রচুর চার্জ নষ্ট করে।

৮.আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ ব‍্যাপার হচ্ছে লাইভ ওয়ালপেপার ব‍্যবহার থেকে বিরত থাকুন।ফোনের ১৫-২০% চার্জ লাইভ ওয়ালপেপার নষ্ট করে।

৯.অনেকেরই একটি বদঅভ‍্যাস আছে প্রয়োজন শেষ হয়ে গেলেও ডাটা কানেকশন বন্ধ করেন না।এটা উচিত নয়।প্রয়োজন শেষে অবশ্যই ডাটা অফ করে দিবেন।এতে ডাটা এবং চার্জ দুটোই সাশ্রয় হবে।

১০.ফোনের সিস্টেম নিয়মিত আপ ঢু ডেট রাখুন।

১১.প্লেস্টোরে বিভিন্ন রকম ব্যাটারি সেভার এ্যাপ পাওয়া যায়।এগুলো কখনোই ডাউনলোড বা ব‍্যবহার করবেন না।এগুলো ব‍্যাটারি সেভ তো করেইনা বরং আরো অনেক বেশী খরচ করে।

এগুলো সঠিক ভাবে অনুসরণ করলে আগের চাইতে ৩/৪ঘন্টা বেশি ব‍্যাকআপ পাবেন।এগুলো সবগুলো আমার পরীক্ষিত পদ্ধতি।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *