সত্যিই কি রয়েছে রহস্যময় ক‍্যাডিজোরা?

ছবিতে সাদা ও কালো ক‍্যাডিজো 

রহস্যপ্রেমীদের জন্য আজকে নিয়ে এলাম নতুন একটি গল্প।যেটি ছড়িয়ে আছে মেক্সিকো, হন্ডুরাস, কোস্টারিকা, গুয়েতমালা ও নিকারাগুয়ার মানুষের মুখে মুখে।ওইসকল দেশের অধিকাংশ মানুষ এই গল্পটি বিশ্বাস করে।আসুন জেনে নেই কি সেই গল্প…

অনেকদিন আগে এক ঝড়ের রাতে দুইভাই বিপদে পড়ে আশ্রয় নিয়েছিল কাছের এক জাদুকরের বাড়িতে।সেই রাতে জাদুকর ওই দুই ভাইকে দিয়েছিল কিছু কাঠ এবং দুইভাই বিনিময়ে তাদের কাছে থাকা কয়লার গুড়া জাদুকরকে দেয়।জাদুকর কয়লার গুড়া পেয়ে খুশি হয় এবং দুই ভাইকে রাতের খাবার খেতে হয়।সমস্যা এখানেই।দুইভাই খেতে গিয়ে কিছু খাবার নষ্ট করে ফেলে।এজন্য জাদুকর তাদের উপর বেশ ক্ষেপে যায় তাদের বাড়ি থেকে বের করে দেয়।জাদুকর দুইভাইকে তাদের বাড়িতে পৌছে দিবে বলে সাথে সাথে যায়।কিছুক্ষণ চলার পর দুইভাই কি মনে করে পেছনে তাকায়।তখনই দেখে জাদুকর নেই তারা একা কিন্তু এরচেয়েও বড় ঘটনা হলো জাদুকর হাওয়া হওয়ার আগে তাদের একজনকে সাদা ক‍্যাডিজো এবং অন‍্য জনকে কালো ক‍্যাডিজোতে রূপান্তর করেছে।

এভাবে দুইভাই ঠিকই গ্রামে ফিরে যায় কিন্তু ক‍্যাডিজোরূপী দুইজনকে গ্রামবাসী চিনতে না পেরে দাওয়া করে গ্রাম থেকে বের করে দেয়।ওইসকল দেশের মানুষজন এখনো বিশ্বাস করে ওই দুইভাই এর আত্মা এখনো ঘুরে বেড়ায় সাদা ও কালো ক্যাডিজো রূপে।সাদা ক‍্যাডিজো বিপদ থেকে রক্ষা করে এবং কালো ক‍্যাডিজো বিপদ সৃষ্টি করে।

জনশ্রুতি অনুযায়ী, আপনি যদি দূর থেকে কোন বাশির আওয়াজ পান তাহলে মনে করতে হবে ক‍্যাডিজো কাছেই আছে।এবং কাছ থেকে কোন বাঁশিল শব্দ পেলে ক‍্যাডিজো দূরে অবস্থান করছে।প্রায় সময় অন্ধকার রাতে নাকি দেখা দেয় ক‍্যাডিজোরা।এদের চোখ রক্ত লাল হয় এবং পায়ের খুর ছাগলের মত হয়।

জনশ্রুতি মতে কালো ক‍্যাডিজো থেকে মানুষ কখনোই বেচে ফিরে আসতে পারেনা।মেক্সিকোর মানুষের মতে ১৯০০ সালের দিকে জোয়ান কার্লোস নামক এক ব‍্যক্তি থাকতো মেক্সিকোতে।সে সারাদিন কাজ করে গভীর রাতে ঘরে ফিরতো।তার বাড়ি ছিল নির্জন মাঠের মধ্যে।সে নাকি প্রতিদিন একটি সাদা কুকুরকে দেখতো।দেখার কিছুক্ষণ এর মধ‍্যেই নাকি এটি উধাও হয়ে যেত।সবসময় অনুসরণ এর চেষ্টা করলেও কখনোই এর নাগাল পায়নি।এভাবেই এখন পর্যন্ত এই গল্পটি চলছ আসছে উক্ত দেশগুলোতে।আপনাদের কি মনে হয় সত্যিই আছে ক‍্যাডিজোরা?জানান কমেন্টে

Comments

comments