Kamov KA-31 AEWC

Kamov KA-31 AEWC
.
এতদিন দেখে এলেন বিমানের উপর রাডার বা রাডারবাহী বিমান অর্থাৎ AEWC Aircraft.আজকে দেখুন হেলিকপ্টার এর নিচে রাডার কীভাবে লাগিয়ে হেলিকপ্টার কে AEWC বানানো হয়েছে 

এই কপ্টারটির নাম KA-31.রাশিয়ার কামভ এর তৈরি এই কপ্টারটি একটি Airborne Early Warning & Control.এর নিচের দিকে বসানো রয়েছে একটি ছোট E-801M রাডার।এই রাডারটি চতুর্দিকে অর্থাৎ ৩৬০ডিগ্রি কভারেজে যুদ্ধবিমানকে ১৫০ কিলোমিটার দূর থেকে ডিটেক্ট করতে পারে।এবং ২০০কিলোমিটার এরমধ্যে জাহাজ সনাক্ত করতে পারে।একসাথে সর্বোচ্চ ৪০টি টার্গেট ট্র্যাক করতে পারে এই রাডারটি।এছাড়াও নিজস্ব ডাটা লিংক রয়েছে এর।

রাশিয়ান নেভীর জন্য একটি ক‍্যারিয়ার বেসড AEWC তৈরির পরিকল্পনা ছিল তৎকালীন সোভিয়েত ইউনিয়ন এর।কিছু সমস্যার কারণে প্রজেক্টটি বাতিল হয় এবং এই প্রজেক্ট নিয়ে কাজ শুরু হয়।ফলাফল হিসেবে তৈরি হয় এই লিজেন্ড।

২টি Isotov TV3-117VMAR turboshaft ইন্জিন এর সাহায্যে ২৫০কিলোমিটার সর্বোচ্চ গতিতে উড়তে পারে এটি।এর রেঞ্জ প্রায় ৬০০কিলোমিটার।এর ককপিটে রয়েছে দুটি মাল্টিফাংশনাল ডিসপ্লে।হেলিকপ্টারটি পরিচালনা করতে দুইজন পাইলট প্রয়োজন হয়।

বলতে গেলে সাইজে মোটামুটি এটি একটি লাইটওয়েট কপ্টারই।এটির ডিজাইন করা হয় এর পূর্ববর্তী KA-27 থেকে।এটি সর্বোচ্চ ১২,২০০ কেজি নিয়ে টেকঅফ করতে পারে।১৯৯৫ থেকে এখন পর্যন্ত ভারত,চীন ও রাশিয়ার নৌ বাহিনীতে সার্ভিস দিয়ে যাচ্ছে এটি।মোট ৩৫টি বানানো হয় এগুলো।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *